32 C
Dhaka
Sunday, April 21, 2024

কাউকে জানালে তোর পরিণতি আবরারের মতো হবে: ছাত্রলীগ নেতা ভাস্কর

ডেস্ক রিপোর্ট:

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) মতিহার হলে তিন ঘণ্টা এক শিক্ষার্থীকে আটকে রেখে শারীরিক নির্যাতন ও গলায় ছুরি ঠেকিয়ে ২০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে। 

গতকাল শুক্রবার (১৯ আগস্ট) বিকেল ৩টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের মতিহার হলে এই ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী সামছুল ইসলাম ঘটনার বিস্তারিত তুলে ধরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। একই সঙ্গে তিনি নিজের নিরাপত্তাও দাবি করেছেন। সামছুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী।

সামছুল ইসলাম জানান, নিজের পড়াশোনার পাশাপাশি মোবাইল সার্ভিসিংয়ের কাজ করে তিনি পরিবার চালান। ছোট ভাইয়ের পড়াশোনা ব্যয়ভারও তিনি বহন করেন। গতকাল শুক্রবার বিকেল ৩টার দিকে মতিহার হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ভাস্কর সাহা তাকে রুমে ডেকে নিয়ে ১০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেন। কিন্তু তিনি চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে তাকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত আটকে রেখে শারীরিক নির্যাতন করেন অভিযুক্ত ছাত্রলীগের নেতাসহ আরও কয়েকজন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, তার কাছে থাকা বিভিন্ন জনের মোবাইল সার্ভিসিংয়ের ২০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেন ভাস্কর সাহা। এ সব কথা সাংবাদিক কিংবা পুলিশকে জানালে বুয়েটের আবরার ফাহাদের মতো তাকেও মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়।

এদিকে এমন অভিযোগ অস্বীকার করে ছাত্রলীগ নেতা ভাস্কর সাহা বলেন, তাকে ফাঁসানোর জন্য এই অভিযোগ করা হচ্ছে। তিনি কারো কাছে চাঁদা দাবি করেননি। এমনকি শারীরিক নির্যাতনও করেননি।

রাবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু বলেন, আমি এ বিষয়ে মাত্র অবগত হলাম। খোঁজ নিচ্ছি, সত্যতা প্রমাণিত হলে জড়িতদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টা এম তারেক নূর বলেন, ইতোমধ্যে অভিযোগ পেয়েছি। কোনো শিক্ষার্থীদের গায়ে হাত দেওয়া এক ধরনের অপরাধ। প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য তাকে আপাতত মেডিক্যালে পাঠিয়েছি। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম অনুযায়ী অভিযুক্তকে সর্বোচ্চ শাস্তি দেওয়া হবে।

মতিহার হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক নজরুল ইসলাম বলেন, ছাত্রকে নির্যাতনের বিষয়টি প্রক্টর অফিস থেকে জেনেছি। ঘটনার সত্যতা যাচাই করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর এবং সহযোগী অধ্যাপক আরিফুর রহমানকে আহ্বায়ক করে শুক্রবার রাত ১১ টায় তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন- সহকারী প্রক্টর ফার্মেসি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আল মামুন ও ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জহুরুল আনিস।

সর্বশেষ সংবাদ

কোনো অপশক্তি ও অন্যায় আবদারের কাছে মাথা নত করবো না: ইসি

নির্বাচন কমিশনার মো. আলমগীর বলেছেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মতো স্থানীয় নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে নির্বাচন কমিশন কঠোর অবস্থানে রয়েছে। আমরা কোনো অপশক্তি ও...

এবার তাপমাত্রা কমাতে পরিকল্পনার কথা জানালেন চিফ হিট অফিসার

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের চিফ হিট অফিসার হিসেবে নিয়োগ পেয়েছিলেন বুশরা আফরিন। এ সময়ে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে বইছে তীব্র তাপপ্রবাহ। প্রচণ্ড গরমে অতিষ্ঠ জনজীবন।...

বকেয়া বেতনের দাবিতে নারায়ণগঞ্জে বিক্ষোভ, শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষ

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় বকেয়া বেতনের দাবিতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করা শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে৷ রোববার (২১ এপ্রিল) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ফতুল্লায় বিসিক শিল্পাঞ্চলের...

ট্রেনে পায়ের আঙুল কাটা পড়েছে অধ্যাপক আনু মুহাম্মদের

রাজধানীর খিলগাঁওয়ে এলাকায় ট্রেনে কাটা পড়ে আহত হয়েছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের সাবেক অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ। আজ রোববার (২১ এপ্রিল) সকাল ১১টার দিকে এ দুর্ঘটনা...

যে অভিযোগে গ্রেপ্তার হলেন কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানের স্ত্রী

কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. আলী আকবর খানের স্ত্রী শেহেলা পারভীনকে সনদ বাণিজ্যের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ।  শনিবার...